ত্বক সুন্দর রাখুন শীতকালেও

0
405

dry-winter-skin-tipsনিউজ ডেস্কঃ শীত আসতে আর মাত্র কয়েকদিনের অপেক্ষা। আর শীত মানেই আনন্দের ঋতু। কলকাতার জলবায়ু অনুযায়ী শীত ছাড়া বাকি সময়টা কাটে গলদঘর্ম হয়ে। তাই বাঙালির বড় আদরের এই শীত। শীত মানেই পার্টি অ্যানিমালরা রেডি। কেউ আবার পিকনিকের জোগাড়যন্ত্র শুরু করে দেন শীত পড়তে না পড়তেই। এত সব একটা কারণেই। শীতে বৃষ্টির প্ল্যান বাঞ্চাল করার স্বভাব ধোপে টেকে না। শীতে সাজাও যায় মনের মত করে। মেক আপ গলে সুন্দরী থেকে কিম্ভূতে পরিণত হওয়ার আশঙ্কাও নেই। আর্দ্রতা থাকে না বলেই রক্ষা পাওয়া যায়। আবার আর্দ্রতা থাকে না বলে এই শীতেই পড়তে হয় অনেক সমস্যার মধ্যে। মেক আপ যতই অক্ষত থাকুক  ত্বক চকচকে রাখতে শীতেও দরকার একটু রূপচর্চা। নাহলে যতই মেক আপ করুন ত্বকে ঔজ্জ্বলতার অভাব বোঝা যাবে।

১) শীতকালে গরম জলে স্নান করার মজাই আলাদা। কিন্তু মুখ ধোওয়ার সময় যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলুন গরম জল। খুব ঠান্ডা পড়লে ব্যবহার করুন ইষদুষ্ণ জল। গরম জলে ত্বক আরও শুষ্ক হয়ে যায়। 1420936_1437663581

২) ময়েশ্চারাইজার সারা বছরই একটু হলেও ব্যবহার কড়া উচিত। আরও শীতে তো প্রধান রূপমন্ত্রই হল ময়েশ্চারাইজার। মুখ ধোয়ার পর বা স্নানের পর সঙ্গে সঙ্গে মেখে নিন ময়েশ্চারাইজার। প্রয়োজন হলে বাথরুমেই রেখে দিন ময়েশ্চারাইজার।

৩) ময়েশ্চারাইজার বেছে নিন নিজের ত্বক অনুযায়ী। পেট্রোলিয়াম বেসড ময়েশ্চারাইজার এড়িয়ে চলুন। এতে ত্বক আরও শুষ্ক হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। চেষ্টা করুন শীতে অয়েল বেসড ময়েশ্চারাইজার কেনার। এড়িয়ে চলুন ওয়াটার বেসড ময়েশ্চারাইজার।

Drink-Water-All-Day৪) গরমকালে রোদ থেকে বাঁচতে যেমন স্কার্ফ ব্যবহার করেন, তেমন শীতেও ঠান্ডা শুষ্ক বাতাস থেকে বাঁচতে স্কার্ফ ব্যবহার করুন। এছাড়া শীতে সূর্যের তাপও যথেষ্ট জোরালো থাকে। তাই অবশ্যই সানসক্রিন ব্যবহার করুন।

৫) শীতকালে সাধারণত আমাদের কম জল তেষ্টা পায়। কিন্তু শরীরে আর্দ্রতা রাখতে প্রচুর জল খান। খেতে পারেন শীতকালীন ফলও। ইষদুষ্ণ জলে লেবুর রশ মিশিয়ে খেলে শরীরে আর্দ্রতা বজায় থাকবে।

৬) হাত, পায়ের পাতা, কনুই, হাঁটু শরীরের অন্যান্য অংশের তুলনায় বেশি শুষ্ক হয়। তাই শোয়ার আগে শরীরের এই অংশে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন। পায়ের পাতায় মোজা পরে নিন এরপর। এতে পা ফাটার সম্ভাবনা থাকবে না। 

৭) মরা ত্বক থেকে মুক্তি পেতে শীতেও ব্যবহার করুন স্ক্রাবার। তবে সপ্তাহে দু বারের বেশি এই স্ক্রাবার ব্যবহার করবেন না। এক মিনিটের বেশি স্কারাব্র ত্বকে ঘষবেন না।

৮) গ্রীষ্ম ও শীত্যেরর ফেস ওয়াশ এবং ক্লিনসার সবসময় আলাদা হয়। তাই এতদিন যেটা ব্যবহার করছিলেন, সেটা সরিয়ে রাখুন। বদলে ব্যবহার করুন ময়েশ্চারাইজার বেসড ক্লিনসার ও ফেস ওয়াশ।

fruit veg৯) শুধু বাইরে থেকেই ক্রিম মাখলে চলবে না। ভেতর থেকে আপনাকে সুস্থ থাকতে হবে। তবেই ত্বকের ঔজ্জ্বলতা প্রকাশ পাবে। তাই আপেল, কমলালেবু, শশার মত ফল খান। গাজর, বীট, ও ভিটামিন সি সমৃদ্ধ সবজি খান।

১০) সপ্তাহে একবার হোমমেড ফেসমাস্ক লাগান। মধু, দই, অলিভ অয়েল, কলা, আমন্ড অয়েল দিয়ে তৈরিকরতে পারেন এই ফেসমাস্ক।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY