রমজানে খেলে হাজতবাস, পাক আইনকে বেনজির-কন্যার কটাক্ষ

0
51

_1494656259নিউজ ডেস্ক : পাকিস্তানের রমজান আইনের কড়া সমালোচনা করলেন সে দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টোর কন্যা বখতওয়ার ভুট্টো জারদারি। তাঁর বক্তব্য, এই আইনে পাক সরকারের ভণ্ডামির দিকটিই প্রতিফলিত হয়েছে। একদিকে যেখানে সন্ত্রাসবাদীরা অবাধে ঘুরে বেড়াচ্ছে, সেখানে রমজান খাবার খেলে জেলে ভরার ব্যবস্থা করা হয়েছে। বেনজির-কন্যার ট্যুইট, জেলে ভরার এ ধরনের নিদান ইসলাম ধর্মে নেই।

People wait to break their fast during the Islamic month of Ramadan at a mosque in Peshawar, Pakistan, Wednesday, June 8, 2016. Muslims across the world are observing the holy fasting month of Ramadan, when they refrain from eating, drinking and smoking from dawn to dusk. (AP Photo/Mohammad Sajjad)

বখতওয়ার ‘এথরাম-ই-রমজান’ অর্ডিন্যান্সকে তীব্র বিদ্রুপ করেছেন। এই অর্ডিন্যান্সে রমজানে প্রকাশ্যে খাবার খেলে তিনমাসের কারাদণ্ডের সংস্থান রয়েছে। পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি)-র চেয়ারম্যান বিলওলাল ভুট্টোর বোনের কটাক্ষ, সন্ত্রাসবাদী হওয়ার জন্য বা মালালা ইউসুফ জোহাইয়ের মতো স্কুলছাত্রীদের খুনের চেষ্টা যারা করছে, তাদের শাস্তি হচ্ছে না বা জেলে ভরা হচ্ছে না, অথচ রমজানে জল পান করলেও কাউকে জেলে পোরা হবে। গত সপ্তাহে ১৯৮১-র জিয়া-উল-হক জমানার ওই অর্ডিন্যান্সের সংশোধন পাক সেনেটে অনুমোদিত হয়েছে। শাস্তি হিসেবে আর্থিক জরিমানার পরিমাণও বাড়ানো হয়েছে। রমজানের সময় প্রকাশ্যে খেলে বা ধূমপান করলে জেল ও জরিমানার সংস্থান রয়েছে অর্ডিন্যান্সে। সংশোধিত অর্ডিন্যান্সে জরিমানার পরিমাণ অনেকটাই বাড়ানো হয়েছে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY