পুরভোটেও মমতা-ম্যাজিক, জয়ের ধারা অব্যাহত তৃণমূলের

0
309

নিউজ ডেস্ক : পুরভোটেও জয়ের ধারা অব্যাহত তৃণমূলের। সমতলের ৩টি পুরসভাতেই জোড়াফুল। খাতা খুলল পাহাড়েও। বুধবার ৭ পুরসভা নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হল। পাহাড়ে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার একছত্র আধিপত্যে থাবা বসাল মমতা ম্যাজিক। পৌরভোটে মিরিক নোটিফায়েড এরিয়া দখল করল তৃণমূল কংগ্রেস। ন’টি ওয়ার্ডের মধ্যে ছ’টি ওয়ার্ডেই জয় লাভ করল তৃণমূল। এর মধ্যে ১, ৪ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডে জয়লাভ করে মোর্চা। বাকি ওয়ার্ডের দখল নিয়ে আগামীতে এককভাবে বোর্ড গড়তে চলেছে তৃণমূল। ১৯৮৬ সালের পর থেকে সমতলের কোনও রাজনৈতিক দলই মিরিকে আধিপত্য বিস্তার করতে পারেনি। প্রথম দিকে গোর্খা ন্যাশানাল লিবারেশন ফ্রন্ট (জিএনএলএফ) এখানে ক্ষমতায় ছিল। তারপর গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা ক্ষমতা দখল করে।মোর্চা সুপ্রিমো বিমল গুরুংয়ের হাত ধরে সেই রাজত্ব এতদিন কায়েম থাকলেও এবার তা ছিনিয়ে নিল তৃণমূল কংগ্রেস।এই মিরিক মহকুমা থেকেই পাহাড়ে এককভাবে পথ চলা শুরু করল শাসকদল।গোর্খার এই হার নিয়ে রাজনৈতিক মহলের ধারণা, গোর্খাল্যান্ড ইস্যু এখানে তেমন কাজ দেয়নি। নয়া মহকুমা ও উন্নয়নের মাধ্যমে এখানে জয়ী হয়েছে তৃণমূল।

24ec754b75025bd207f95b0db9bdc83c5fe82029-tc-img-previewঅন্যদিকে দক্ষিণ ২৪ পরগনার পূজালি পৌরসভার দখল ধরে রাখল রাজ্যের শাসক শিবির। মোট ১৬টি আসনের মধ্যে ১২টিতে জয়লাভ করেছে তৃণমূল। দু’টি আসনে জয়ী হয়েছে বিজেপি এবং একটি আসন পেয়েছে কংগ্রেস। অপর একটি আসনে জিতেছেন নির্দল প্রার্থী। তবে, খাতা খুলতে পারেনি বামেরা। আবার শেষরক্ষা হল না ডোমকলে। অধীরগড়ে কংগ্রেসকে কার্যত ধুয়েমুছে সাফ করে ডোমকল পৌরসভার দখল নিল তৃণমূল কংগ্রেস। মাথা তুলতে পারেনি সিপিএমও। ডোমকল পৌরসভায় মোট আসন ছিল ২১টি। তার মধ্যে কংগ্রেস জিতেছিল ৯ এবং ২১ নম্বর ওয়ার্ডে। এবং ২০ নম্বর ওয়ার্ডে জিতেছিল সিপিএম। কিন্তু ফলাফল প্রকাশ হতেই তাঁরা দলবদল করেন। যোগ দিয়ে দেন তৃণমূলে। ফলে ২১-০ অবস্থায় রইল ডোমকল পৌরসভার ফলাফল। ৯ নম্বর ও ২১ নম্বর ওয়ার্ডে কংগ্রেসের হয়ে জিতেছিলেন আসাদুল ইসলাম ও বিলাল শেখ। এবং ২০ নম্বর ওয়ার্ডে সিপিএম-এর হয়ে জিতেছিলেন রফিকুল ইসলাম।

635992674379689976. ডোমকলে মোট আসন ২১। তার মধ্যে তৃণমূল ১৮, কংগ্রেস ২ আর সিপিএম ১টি আসন পেয়েছে। রায়গঞ্জে মোট আসন ২৭। সেখানে তৃণমূল ২৪, কংগ্রেস ২ আর বিজেপি ১টি আসন পেয়েছে। কালিম্পংয়ে মোট আসন ২৩। এখানে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা ১৯, তৃণমূল ২ এবং জন আন্দোলন পার্টি ২টি আসন পেয়েছে। কার্সিয়াংয়ে মোট আসন ২০। গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা ১৭টি আর তৃণমূল ৩টি আসন পেয়েছে। মিরিকে আসন ৯টি। এখানে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা ৩টি ও তৃণমূল ৬টি আসন পেয়েছে। ‌দার্জিলিংয়ের আসন ৩২। সেখানে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা ৩১টি এবং তৃণমূল ১টি আসন লাভ করেছে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY