হেরাল্ড মামলায় সনিয়া-রাহুলের বিরুদ্ধে আয়কর তদন্তের অনুমতি আদালতের

0
81

নিউজ ডেস্ক : ন্যাশনাল হেরাল্ড মামলায় দিল্লি হাইকোর্টে ধাক্কা খেলেন সনিয়া ও রাহুল গান্ধী। আয়কর দফতরকে ‘‌ইয়ং ইন্ডিয়ানস প্রাইভেট লিমিটেড’‌–এর বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। আয়কর সংক্রান্ত সমস্ত নথিপত্র জমা করতে হবে তাদের। ‘‌ইয়ং ইন্ডিয়ানস প্রাইভেট লিমিটেড’‌–এর ৩৮ শতাংশ করে শেয়ারের অংশীদার কংগ্রেস সভাপতি সনিয়া ও তাঁর ছেলে রাহুল। তাঁদেরও জেরা করা হতে পারে। এর আগে পাটিয়ালা হাউস কোর্ট ন্যাশনাল হেরাল্ড মামলার তদন্তের নির্দেশ দেয়। দিল্লি হাইকোর্টে সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানানো হয়েছিল। শুক্রবার তার শুনানিতে পাটিয়ালা হাইকোর্টের রায়ই বহাল রাখল দিল্লি হাইকোর্ট।

428336-pti-sonia-and-rahul-gandhiশুক্রবার আদালতের রায় শোনার পরই ‌কংগ্রেসকে বড় ধাক্কা দেওয়া গিয়েছে বলে মন্তব্য করেছে বিজেপি। তবে এখনই দমে যেতে নারাজ কংগ্রেস। তাদের দাবি, আদালত তদন্তের নির্দেশ দিলেও দল বা নেতাদের এতে কোনও ক্ষতি হবে না। কারণ আদালত তো বলেইছে যে চাইলে আয়কর সংক্রান্ত তদন্তে আপত্তি জানাতেই পারে ‘‌ইয়ং ইন্ডিয়ানস প্রাইভেট লিমিটেড।’

বাজার মূল্য ২ হাজার কোটি টাকার বেশি, কিন্তু মাত্র ৫০ লক্ষ টাকা দিয়ে এমন একটি কোম্পানির মালিকানা পাওয়ার জন্য সনিয়া, রাহুলের বিরুদ্ধে ২০১২ সালে প্রতারণা ও ষড়যন্ত্রের অভিযোগ দায়ের করেন বিজেপি সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামী। ওঁদের বিরুদ্ধে আর্থিক তছরূপের অভিযোগ তোলেন তিনি। তার ভিত্তিতেই এই মামলা। স্বামীর অভিযোগ, ইয়ং ইন্ডিয়া প্রাইভেট লিমিটেড নামে একটি সংস্থা ৫০ লক্ষ টাকা দিয়েছিল দি অ্যাসোসিয়েট জার্নালস লিমিটেড কেনার জন্য। ন্যাশনাল হেরাল্ড সংবাদপত্র প্রকাশ করত অ্যাসোসিয়েট জার্নালস লিমিটেড। ইয়ং ইন্ডিয়ায় সনিয়া, রাহুল দুজনেরই শেয়ার আছে। তাঁরা ওই কোম্পানির  ডিরেক্টর। কংগ্রেসের কাছে অ্যাসোসিয়েট জার্নালস লিমিটেডের দেনা ছিল ৯০.২৫ কোটি টাকা। স্বামীর দাবি, এমন একটি সংস্থার মালিকানা কংগ্রেস যেভাবে ইয়ং ইন্ডিয়া প্রাইভেট লিমিটেডের মাধ্যমে পেয়েছে, তা নিয়ে  নানা প্রশ্ন রয়েছে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY